ঢাকা, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ২৩:২২:৩৮ || ৬ আশ্বিন ১৪২৬
Advertisement
৬১৭

রিজেন্ট ছাড়লেন মোমেন

এভিয়েশন করেসপন্ডেন্ট

প্রকাশিত: ২ জুন ২০১৪  


ঢাকা: অবশেষে রিজেন্ট এয়ারওয়েজ ছাড়লেন ড. এম এ মোমেন। অনেকদিন ধরেই তার পদত্যাগের গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল। সব গুঞ্জনের অবসান ঘটিয়ে ৩১ মে তিনি রিজেন্ট থেকে বিদায় নেন।

রিজেন্ট এয়ারওয়েজ সূত্রে জানা গেছে, মূলত মালিকের সঙ্গে বনিবনা না হওয়াতেই এয়ারওয়েজের প্রধান নির্বাহীর পদ থেকে ড. মোমেন পদত্যাগ। এয়ারওয়েজের প্রথম প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ইমরান আসিফও মালিকের সঙ্গে দ্বন্দ্বে রিজেন্ট ছেড়েছিলেন।  

২০১৩ সালের ৩১ আগস্ট ইমরান আসিফ রিজেন্ট থেকে পদত্যাগ করেন। এরপর ১১ সেপ্টেম্বর ওই পদে রিজেন্টের যোগদান করেন ড. এম এ মোমেন। ২০০৭ সালে ড. মোমেন রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সে থাকাকালে স্বেচ্ছায় অবসর কর্মসূচির আওতায় (ভিআরএস) প্রায় দুই হাজার কর্মীকে চাকরিচ্যুৎ করেছিলেন।  

উড়োজাহাজ সংকটের কারণে অনেক দিন ধরেই রিজেন্ট এয়ারওয়েজের ফ্লাইট ঠিকমতো চলছিল না। তাছাড়া বৈমানিক সংকটেও ভুগছিল তারা। এ কারণে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স থেকে ধার করা বৈমানিক দিয়ে ফ্লাইট চালাচ্ছিল তারা।  
 
রিজেন্টের বহরে বর্তমানে চারটি উড়োজাহাজ রয়েছে। এর মধ্যে অভ্যন্তরীণ রুটের জন্য দুটি ড্যাশ ৮ উড়োজাহাজের একটি চার মাস ধরে অচল। বাকি উড়োজাহাজটিও যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে প্রায়ই বসে যাচ্ছে। কোনো রকমে জোড়াতালি দিয়ে মেরামতের পর আবার তা আকাশে উড়ছে। আবারও অচল হচ্ছে। এভাবে চলছে ড্যাশ ৮। বাকি দুটি বোয়িং ৭৩৭ এর একটি কমবেশি অচল থাকে।  

বাংলাদেশ সময়: ১০৪০ ঘন্টা, জুন ১, ২০১৪


এই বিভাগের আরো খবর